নদীর বিভিন্ন কাজ দ্বারা সৃষ্ট ভূমিরূপ – প্রশ্ন উত্তর | সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন

nodirkaj-saq
শ্রেণি – দশম | বিভাগ – ভূগোল | উপঅধ্যায় – নদীর বিভিন্ন কাজ দ্বারা সৃষ্ট ভূমিরূপ | Nodir Kaj – Chapter 1

এই পর্বে রইল দশম শ্রেণির ভূগোল বিভাগের প্রথম অধ্যায় বহির্জাত প্রক্রিয়া ও তাদের দ্বারা সৃষ্ট ভূমিরূপের নদীর কাজ উপঅধ্যায় থেকে কয়েকটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন (SAQ) এবং সেগুলির উত্তর।

সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন (SAQ)

১। ষষ্ঠঘাতের সূত্র কি?
উত্তর- নদীর গতিবেগ যদি দ্বিগুণ বাড়ে তবে নদীর বহন ক্ষমতাও 26 গুন বা 64 গুণ বৃদ্ধি পায় একে ষষ্ঠঘাতের সূত্র বলা হয়।

২। কিউসেক ও কিউমেক কি?
উত্তর- নদীর জলপ্রবাহের দুটি একক হল কিউসেক ও কিউমেক। নদীর প্রবাহ পথের কোনো একটি নির্দিষ্ট অংশে প্রতি সেকেন্ডে যত ঘনফুট জল প্রবাহিত হয় তাকে কিউসেক বলে। আবার, নদীর প্রবাহ পথের কোনো একটি নির্দিষ্ট অংশে প্রতি সেকেন্ডে যত ঘনমিটার জল প্রবাহিত হয় তাকে কিউমেক বলে।

৩। মন্থকূপ কি?
উত্তর- নদীর গতিপথে কোমল শিলা থাকলে নদীর জলস্রোতের বয়ে আনা নুড়ি-পাথরের ক্রমাগত ঘর্ষণ ও পাক খাওয়ার ফলে নদী গর্ভে গোলাকার গর্তের সৃষ্টি হয় যাকে মন্থ কূপ বা পটহোল বলা হয়।

৪। প্রপাতকূপ কাকে বলে?
উত্তর- জলপ্রপাতের নিচে ভূমির যে অংশে জল প্রবল বেগে ভূমি স্পর্শ করে সেই অংশে জলের ক্রমাগত প্রবল চাপে এবং জলের সাথে বয়ে আসা নুড়ি ও পাথরের আঘাতে ঐ অংশে বড় বড় গর্ত সৃষ্টি হয় একেই প্রপাত কূপ বলা হয়।


আরো পড়ো → নদীর বিভিন্ন কাজ দ্বারা সৃষ্ট ভূমিরূপ | অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন

৫। ধারণ অববাহিকা কাকে বলে?
উত্তর- মূল নদী ও উপনদী উচ্চভূমির যে অঞ্চলের অসংখ্য নদী, জলাশয় থেকে জল সংগ্রহ করে পুষ্ট হয় তাকে ধারণ অববাহিকা বলা হয়।

৬। নদীবাঁক কাকে বলে?
উত্তর- মধ্য গতি ও নিম্নগতিতে ভূমির ঢাল হঠাৎ হ্রাস পেলে নদীর গতিবেগ হ্রাস পায়। এর ফলে নদী নিজের গতিপথের মধ্যে কোনো কারণে বাধা পেলে সেই বাধা এড়ানোর জন্য বাধাগুলিকে এড়িয়ে এঁকে বেঁকে প্রবাহিত হয়। নদীর এই আঁকা বাঁকা অংশ গুলোকেই নদী বাঁক বলা হয়।

৮। নগ্নীভবন কাকে বলে? [মাধ্যমিক 19]
উত্তর- পুঞ্জিতস্খলন, আবহবিকার ও ক্ষয়ীভবন প্রক্রিয়ার মিলিত প্রভাবে শিলাস্তর মুক্ত হয় বা নগ্ন হয়, এই ত্রয়ী শক্তির মিলিত প্রক্রিয়াকেই তাই একত্রে নগ্নীভবন বলে।

৯। স্বাভাবিক বাঁধ কাকে বলে?
উত্তর- প্লাবনের সময়ে নদীর জলে মিশ্রিত বড় দানার পলি বেশি দূর পরিবাহিত হতে পারে না এবং নদীর পাড়ের কাছেই তাড়াতাড়ি থিতিয়ে পড়ে। এভাবে সময়ের সাথে সাথে বার বার প্লাবনের ফলে নদীর দুই পাড়ে পলি জমে উচুঁ হয়ে নদীর পাড় বরাবর বাঁধের মত দেখতে ভূমিরূপ গঠন করে যাকে স্বাভাবিক বাঁধ বলা হয়।

১০। কাসপেট বদ্বীপ কি?
উত্তর- অনেক ক্ষেত্রে নদীর মোহনায় অনুকূল অবস্থা থাকলে নদীস্রোত কখনো কখনো সোজাসোজি সমুদ্রের মধ্যে অনেকদূর পর্যন্ত প্রবাহিত হয়, এবং সমুদ্রের তীরে স্রোতের উভয়পার্শ্বে পলি সঞ্চিত হয, এইভাবে পলিসঞ্চিত হয়ে যে ত্রিকোণাকার বদ্বীপ সৃষ্টি করে তাকে কাসপেট বদ্বীপ বলে। ইতালির টাইবার নদীতে গঠিত বদ্বীপ এর অন্যতম উদাহরণ।

আরো কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন – উত্তর দেখে নাও এই ভিডিও থেকে↓

আরো পড়ো  → ইতিহাসের ধারণা সংক্ষিপ্ত উত্তরধর্মী প্রশ্ন – উত্তর

WBPorashona.com-এর পোস্ট আপডেট নিয়মিত পাবার জন্য –


আমাদের কাজ থেকে উপকৃত হলে এই লেখাটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

WBP-YT-Banner