অভিযোজন – প্রশ্ন উত্তর | Obhijojon – Question Answer

মাধ্যমিকে প্রতিটি অধ্যায়ের প্রস্তুতি নিশ্চিত করার সেরা উপায় ↓

WBP-CT-Banner_offer
obhijojon
শ্রেণি – দশম | বিভাগ – জীবনবিজ্ঞান | অধ্যায় – অভিযোজন | obhijojon (Chapter 13)

এই পর্বে রইল দশম শ্রেণির জীবন বিজ্ঞান বিভাগের ত্রয়োদশ অধ্যায় – অভিযোজন থেকে কয়েকটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন – উত্তর আলোচনা।

সঠিক উত্তর নির্বাচন করো। (MCQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 1]

1। জীবের আকার, শারীরবৃত্তীয় ক্রিয়াকলাপ বা আচরণের পরিবর্তন হল –
ক) অভিব্যক্তি খ) বিবর্তন গ) অভিযোজন ঘ) উপযোজন

উত্তর-জীবের আকার, শারীরবৃত্তীয় ক্রিয়াকলাপ বা আচরণের পরিবর্তন হল –গ) অভিযোজন।

2। প্রাণীদের অস্তিত্ব রক্ষায় ও জনন প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে –
ক) আবর্তন খ) আবরণ গ) আরোহণ ঘ) আচরণ

উত্তর- প্রাণীদের অস্তিত্ব রক্ষায় ও জনন প্রক্রিয়ায় সাহায্য করে –ঘ) আচরণ।

3। ভৌত শুষ্ক মৃত্তিকাতে জন্মায় এমন একটি উদ্ভিদ হল –
ক) গরান খ) তরমুজ গ) ক্যাকটাস ঘ) গেঁওয়া

উত্তর- ভৌত শুষ্ক মৃত্তিকাতে জন্মায় এমন একটি উদ্ভিদ হল –গ) ক্যাকটাস।

4। মাছকে জলের মধ্যে গভীরতা পরিবর্তন করতে সাহায্য করে –
ক) পটকা খ) পাখনা গ) আঁশ ঘ) লেজ

উত্তর- মাছকে জলের মধ্যে গভীরতা পরিবর্তন করতে সাহায্য করে – ক) পটকা।

5। বায়ুথলি দেখা যায় –
ক) মানুষে খ) পায়রার গ) হরিণে ঘ) তিমিতে

উত্তর- বায়ুথলি দেখা যায় – খ) পায়রার।

6। উটের অতিরিক্ত জলক্ষয় সহনের ক্ষমতার কারণ হল –
ক) এদের –RBC লম্বাটে খ) এদের মল–মূত্রে জলের পরিমাণ খুব কম থাকে গ) এদের দেহে প্রচুর ঘর্মগ্রন্থি থাকে ঘ) কুঁজে জল সঞ্চিত থাকে

উত্তর- উটের অতিরিক্ত জলক্ষয় সহনের ক্ষমতার কারণ হল – খ) এদের মল–মূত্রে জলের পরিমাণ খুব কম থাকে।

7। উইপোকার ঢিপিতে কাঠি ঢুকিয়ে উই শিকারে অভ্যস্ত প্রাণী হল –
ক) বাঘ খ) হাতি গ) শিম্পাঞ্জি ঘ) বানর

উত্তর- উইপোকার ঢিপিতে কাঠি ঢুকিয়ে উই শিকারে অভ্যস্ত প্রাণী হল –গ) শিম্পাঞ্জি।

8। ‘মৌমাছির ভাষা’ আবিষ্কার করেন বিজ্ঞানী –
ক) নিকোটিন বারজেন খ) কার্ল ভন ফ্রিশ গ) জেন গুডাল ঘ) কনরাড লোরেঞ্জ

উত্তর- ‘মৌমাছির ভাষা’ আবিষ্কার করেন বিজ্ঞানী –খ) কার্ল ভন ফ্রিশ।

9। ওয়াগ্‌ল কথার অর্থ হল –
ক) আন্দোলন / কম্পন খ) বৃত্ত গ) কোণ ঘ) কোনোটিই নয়

উত্তর- ওয়াগ্‌ল কথার অর্থ হল –ক) আন্দোলন / কম্পন।

10। সুন্দরবন অঞ্চলে লবণপূর্ণ মাটি থেকে জল ও অক্সিজেন গ্রহণ অসুবিধাজনক বলে একে বলে –
ক) ভৌত শুষ্ক মৃত্তিকা খ) শারীরবৃত্তীয় শুষ্ক মৃত্তিকা গ) লবণাক্ত মৃত্তিকা ঘ) ল্যাটেরাইট মৃত্তিকা

উত্তর- সুন্দরবন অঞ্চলে লবণপূর্ণ মাটি থেকে জল ও অক্সিজেন গ্রহণ অসুবিধাজনক বলে একে বলে –খ) শারীরবৃত্তীয় শুষ্ক মৃত্তিকা।

আরো পড়ো → ভারতের কৃষি অধ্যায়ের প্রশ্ন উত্তর

একটি বাক্যে উত্তর দাও। (VSAQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 1]

1। কোন গাছে পর্ণকান্ড দেখা যায়?
উত্তর- ফণীমনসা গাছে পর্ণকান্ড দেখা যায়।

2। একটি মুখ্য জলজ অভিযোজনকারী প্রাণীর নাম লেখো।
উত্তর- একটি মুখ্য জলজ অভিযোজনকারী প্রাণীর নাম হল মাছ।

3। রুইমাছের পটকায় অবস্থিত রক্ত জালকটির নাম কী?
উত্তর- রুইমাছের পটকায় অবস্থিত রক্ত জালকটির নাম হল রেটিয়া মিরাবিলিয়া।

4। পায়রার খেচর অভিযোজন বায়ুথলির যে-কোনো একটি ভূমিকা লেখো।
উত্তর- পায়রার খেচর অভিযোজন বায়ুথলির একটি ভূমিকা হল- পায়রা ওড়ার জন্য অতিরিক্ত শক্তি ও অক্সিজেন প্রয়োজন, বায়ুথলি পায়রাকে এই শক্তি ও অক্সিজেন যোগান দেয়।

5। উটের RBC এর আকৃতি ডিম্বাকার হওয়ার সুবিধা কী?
উত্তর- উটের RBC এর আকৃতি ডিম্বাকার হওয়ার সুবিধা হল এরা দেহে জলের পরিমাণ কম থাকলেও ঘন রক্তের মধ্যে দিয়ে বা রক্তজালকের মধ্যে যেতে পারে।

আরো পড়ো → পথের দাবী গল্পের প্রশ্ন উত্তর

সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্ন (SAQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 2/3]

1। অভিযোজন ও অভিব্যক্তির মধ্যে সম্পর্ক লেখ।
উত্তর- সবসময় পরিবর্তনশীল পরিবেশের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য জীবের গঠনগত, শারীরবৃত্তীয় এবং আচরণগত পরিবর্তন ঘটে। এই পরিবর্তন সমূহকেই জীবের অভিযোজন বলা হয়। যদি জীব পরিবেশের সঙ্গে খাপ খাইয়ে নিতে না পারে অর্থাৎ অভিযোজিত না হতে পারে। তাহলে কালক্রমে সেই প্রজাতির বিলুপ্তি ঘটে। প্রকৃতির সঙ্গে খাপ খাইয়ে নেওয়ার জন্য জীবদেহের কিছু পরিবর্তন হয় যাকে অনুকূল প্রকরণ বলা হয়। সেই অনুকূল প্রকরণে অভিযোজিত জীব প্রাকৃতিক নির্বাচন দ্বারা যোগ্য রূপে বিবেচিত হলে নতুন বৈশিষ্ট্যগুলি বংশপরম্পরায় সঞ্চারিত হয় যার ফলে নতুন বৈশিষ্ট্য যুক্ত প্রজাতি অর্থাৎ জীবের আবির্ভাব হয় তার ফলে অভিব্যক্তি ঘটে। সুতরাং অভিযোজনকে কারণ এবং অভিব্যক্তিকে তার ফল হিসাবে বলা যায়। এইভাবে অভিযোজন ও অভিব্যক্তি সম্পর্কিত।

2। পর্ণকাণ্ড কি? এটি কিভাবে অভিযোজনে সাহায্যে করে?
উত্তর- জাঙ্গল উদ্ভিদের কান্ড পাতার ফলকের মতো চ্যাপ্টা, সবুজ বর্ণের হয়, যাকে পর্ণকাণ্ড বলে (পর্ণ অর্থাৎ পাতা, পাতার মতো দেখতে কাণ্ড বলে এর নাম পর্ণকাণ্ড)।
ক্যাকটাস উদ্ভিদে পাতা থাকে না, পাতা ছোটো ছোটো কাঁটায় অর্থাৎ পত্রকণ্টকে রূপান্তর হয়। পাতার নির্দিষ্ট কাজ কাণ্ডের দ্বারাই সম্পন্ন হয়। সবুজ পর্ণকান্ড সালোকসংশ্লেষ করে। এই কাণ্ডে পত্ররন্ধ্রের উপস্থিতি দেখতে পাওয়া যায়, যার মধ্যে দিয়ে কার্বন ডাইঅক্সাইড উদ্ভিদ দেহে প্রবেশ করে।

3। খেচর অভিযোজনে পায়রার বায়ুথলীর ভূমিকা কি?
উত্তর-পায়রার ফুসফুসের সাথে ৯ টি বায়ুথলি বা এয়ারস্যাক যুক্ত থাকে।
বায়ুথলিগুলি বায়ুর দ্বারা পূর্ণ থাকায় পায়রার দেহকে হালকা করে।
আকাশে ওড়ার জন্য পায়রার অতিরিক্ত শক্তির প্রয়োজন হয়। ফলে ওড়ার সময় অতিরিক্ত শক্তির জোগান দিতে এই বায়ুথলিগুলি অক্সিজেন সরবরাহ করে।
ফুসফুসের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি করে। ফলে পায়রা খুব সহজে ক্লান্ত হয় না এবং অনেকক্ষণ ভেসে থাকতে পারে।

4। অতিরিক্ত জলক্ষয় সহনের জন্য উটের কি অভিযোজন দেখা যায়?
উত্তর- অতিরিক্ত জলক্ষয় সহনের জন্য উটের যে যে অভিযোজন দেখা যায়, সেগুলি হল-
ক) উটের দেহত্বক খুব পুরু এবং ঘন রোম যুক্ত হওয়ার ফলে ঘামের মাধ্যমে জলের বাষ্পীভবন কম হয়।
খ) পরিবেশের তাপমাত্রা সাথে সাথে ও নিজের দেহের তাপমাত্রার পরিবর্তন করতে পারে।
গ) উটের নাসারন্ধ্রে মিউকাসেরর স্তর থাকার ফলে নিশ্বাস বায়ুতে উপস্থিত জলীয়বাষ্প নাসাপথের মিউকাস দ্বারা পুনরায় শোষিত হয়। এর ফলে নিঃশ্বাসের মাধ্যমে দেহ থেকে জল নিষ্কাশন ব্যাহত হয়।
ঘ) উট অর্ধ কঠিন মূত্র ত্যাগ করে।

5। মাছের পটকা কিভাবে অভিযোজনে সাহায্যে করে?
উত্তর- জলে ভেসে থাকার জন্য মাছের দেহের আপেক্ষিক গুরুত্ব কম হওয়া প্রয়োজন। মাছের পটকার অগ্ৰ প্রকোষ্ঠে অবস্থিত রেড গ্ৰন্থি গ্যাস সৃষ্টি করলে অগ্ৰ প্রকোষ্ঠ বায়ুপূর্ণ হয়ে প্রসারিত হয় অর্থাৎ ফুলে যায়। তখন দুই প্রকোষ্ঠের সংযোগ রক্ষাকারী নিউম্যাটিক ভালব্ বন্ধ হয়ে যায়। ফলে মাছের দেহের আপেক্ষিক গুরুত্ব হ্রাসপ্রাপ্ত হয় এবং জলের ওপর ভেসে ওঠে।
আবার জলের মধ্যে ডুবে যাওয়ার জন্য দুই প্রকোষ্ঠের সংযোগ রক্ষাকারী নিউম্যাটিক ভালব্ খুলে যায় এবং রেড গ্রন্থির উৎপন্ন গ্যাস পাশের প্রকোষ্ঠের রেটিয়া মিরাবিলিয়া রক্তজালক দ্বারা শোষিত হয়। তার ফলে পটকা সংকুচিত হয়। ফলে মাছের দেহের আপেক্ষিক গুরুত্ব বৃদ্ধিপ্রাপ্ত হয় এবং মাছ সহজে জলের মধ্যে ডুবে যায়।

6। শিম্পাঞ্জির জীবন সংগ্রামে দুটি আচরণগত অভিযোজন সম্পর্কে লেখ।
উত্তর- শিম্পাঞ্জির আচরণগত অভিযোজন:
শিম্পাঞ্জি খুব উন্নত ও বুদ্ধিমান প্রাণী। মানুষের মতো এরাও বুদ্ধিদীপ্ত আচরণের মাধ্যমে বিভিন্ন সমস্যার সমাধান করে। যেমন –
i) শিম্পাঞ্জিরা শক্ত-টেকসই পাথরের তৈরি পাটাতনকে নেহাই এর মতো ব্যবহার করে, তার উপরে বাদাম রেখে মোটা গাছের ডাল বা বড় পাথরকে হাতুড়ি হিসাবে ব্যবহার করে তা দিয়ে বাদামের উপর আঘাত করে বাদামের খোলা ভাঙে।
ii) শিম্পাঞ্জিরা যখন কোনো পরজীবী দ্বারা আক্রান্ত হয় তখন নিজেরাই ভেষজগুণ সম্পন্ন বিভিন্ন গাছের পাতা খাদ্য রূপে গ্ৰহণ করে, যা আক্রান্তকারী পরজীবীর ক্ষতি করে এবং শিম্পাঞ্জিদের সুস্থ হতে সাহায্য করে।

7। সুন্দরী গাছের শ্বাসমূলে কি ধরনের অভিযোজন ঘটেছে?
উত্তর- সুন্দরী গাছের শ্বাসমূলের অভিযোজন:
ক) শ্বাসমূল – লবণাক্ত মাটিতে অক্সিজেনের পরিমাণ কম থাকায় শ্বাসকার্যের সুবিধার্থে সুন্দরী গাছের এক বিশেষ রকম বৈশিষ্ট্য দেখা যায়। এই গাছের কিছু শাখা-প্রশাখা মূল অভিকর্ষের বিপরীতে মাটির উপরে উঠে আসে একে শ্বাসমূল বা নিউম্যাটোফোর বলে।
খ) শ্বাসরন্ধ্র – শ্বাসমূল অসংখ্য শ্বাসরন্ধ্র যুক্ত হয়। এর ফলে গাছের বায়ু থেকে অক্সিজেন শোষণ করতে সুবিধা হয়। ফলে দেহের প্রয়োজনীয় অক্সিজেনের চাহিদা পূর্ণ হয়।

আরো পড়ুন → অংশীদারি কারবার অধ্যায়ের গাণিতিক সমস্যার সমাধান

দীর্ঘভিত্তিক প্রশ্নউত্তর (LA)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান ৫]

1। মৌমাছির ওয়াগল নৃত্য কি?
উত্তর- যখন মৌচাক থেকে খাদ্যের উৎস এর দূরত্ব নব্বই মিটারের বেশি হয় তখন স্কাউট মৌমাছি এই ওয়াগল ডান্স পরিবেশন করে। “ওয়াগল” কথার অর্থ হল কম্পন। ওয়াগল ডান্স মৌচাক থেকে খাদ্যের উৎস এর দূরত্ব এবং দিক দুটি নির্দেশ করে। তাই ওয়াগল ডান্সকে Language of Bee বলে।
ওয়াগল ডান্স মৌচাকের দেওয়ালে উলম্বভাবে বা মৌচাকের প্রবেশ পথে অনুভূমিকভাবে পরিবেশিত হয়।
ওয়াগল ডান্সে স্কাউট মৌমাছি ইংরেজি নাম্বার ৮ (8) এর মত পাক খায়।
এক্ষেত্রে 8 মত লুপ তৈরি করার সময় স্কাউট মৌমাছি প্রথমে বাম দিকে এবং পরে ডান দিকে পাক খায়। এভাবে পাক খাবার সময় মৌমাছির উদর অংশ এক সরলরেখা বরাবর ক্রমাগত কম্পিত হতে থাকে।
অর্থাৎ প্রথমে সরলরেখা বরাবর মৌমাছি উদর অংশ কম্পিত করে এবং বাঁদিকে ঘুরে একটি অর্ধবৃত্ত তৈরি করে। একইভাবে সরলরেখা বরাবর কম্পিত হয়ে উল্টো দিকে অর্থাৎ ডান দিকে ঘুরে আবার একটি অর্ধবৃত্ত তৈরি করে এভাবে ‘8’ লুপ সম্পন্ন হয়।


বিজ্ঞানী কার্ল ভন ফ্রিশচ্ এর মতানুসারে, সরলরেখা বরাবর কম্পন মৌচাক থেকে খাদ্যের উৎস এর দিক নির্দেশ করে এবং কম্পনের গতি মৌচাক থেকে খাদ্য উৎসের দূরত্ব নির্দেশ করে।
স্কাউট মৌমাছিরা সাধারনত সূর্যকে কম্পাস দিক নির্ণায়ক হিসেবে ব্যবহার করে তাদের নাচের অভিমুখ পরিবর্তন করে। এর ফলে মৌচাকের অন্যান্য কর্মী মৌমাছিদের খাদ্যের সন্ধান করতে সুবিধা হয়।

আরো পড়ুন → অভিব্যক্তি অধ্যায়ের প্রশ্ন ও উত্তর

WBPorashona.com-এর পোস্ট আপডেট নিয়মিত পাবার জন্য –


আমাদের কাজ থেকে উপকৃত হলে এই লেখাটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

WBP-YT-Banner