পরমাণুর নিউক্লিয়াস – প্রশ্ন উত্তর | Poromanur Nucleus Question Answer WBBSE

মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের জন্য বিশেষ সুখবর ↓

WBP-CT-Banner_offer
poromanur-nucleus
শ্রেণি – দশম | বিভাগ – ভৌতবিজ্ঞান| অধ্যায় – পরমাণুর নিউক্লিয়াস – প্রশ্ন উত্তর – Atomic Nucleus Question Answer | Poromanur Nucleus (Chapter 7)

এই পর্বে রইল দশম শ্রেণির ভৌতবিজ্ঞান বিভাগের সপ্তম অধ্যায় – পরমাণুর নিউক্লিয়াস থেকে কয়েকটি ভীষণ গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন – উত্তর আলোচনা।

সঠিক উত্তর নির্বাচন করো। (MCQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 1]

1। ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয় –
a) তেজস্ক্রিয় কোবাল্ট b) তেজস্ক্রিয় সোডিয়াম c) ইউরেনিয়াম d) রেডিয়ো কার্বন।

উত্তর- ক্যান্সার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়- a) তেজস্ক্রিয় কোবাল্ট।

2। একটি মমির বয়স বা কোনো জীবাশ্মের বয়স জানার জন্য কার্বনের কোন্‌ আইসোটোপটি ব্যবহার করা হয় –
a) \(\textrm{C}^{12}\) b) \(\textrm{C}^{13}\) c) \(\textrm{C}^{14}\) d) \(\textrm{C}^{15}\)।

উত্তর-একটি মমির বয়স বা কোনো জীবাশ্মের বয়স জানার জন্য কার্বনের c) \(\textrm{C}^{14}\) আইসোটোপটি ব্যবহার করা হয়।

3। তেজস্ক্রিয় মৌলগুলিতে নিউট্রন (n) ও প্রোটন ( p) সংখ্যার অনুপাত হয় –
a) 1.5 এর বেশি b) 1.5 এর কম c) 1 d) 1 এর কম

উত্তর-তেজস্ক্রিয় মৌলগুলিতে নিউট্রন (n) ও প্রোটন (p ) সংখ্যার অনুপাত হয় – a) 1.5 এর বেশি।

4। তেজস্ক্রিয় মৌল সর্বশেষে যে মৌলে পরিণত হয় সেটি হল –
a) থোরিয়াম (Th) b) টাংস্টেন (W) c) মলিবডেনাম (Mo) d) লেড (Pb)

উত্তর-তেজস্ক্রিয় মৌল সর্বশেষে যে মৌলে পরিণত হয় সেটি হল – d) লেড (Pb).

5। অতেজস্ক্রিয় মৌলটি হল –
a) Po b) Pb c) Pu d) Rn

উত্তর- অতেজস্ক্রিয় মৌলটি হল – b) Pb.

6। পরমাণু চুল্লিতে ভারী জল (\({D}_2\textrm{O}\)) ব্যবহার করা হয় কী হিসেবে?
a) জ্বালানি b) মডারেটর c) প্রজেক্‌টাইল d) ডাইলুয়েন্ট

উত্তর- পরমাণু চুল্লিতে ভারী জল (\({D}_2\textrm{O}\)) ব্যবহার করা হয় b) মডারেটর হিসেবে।

7। নিউক্লিয় বিভাজন বা সংযোজন বিক্রিয়ায় তাপ শক্তি উৎপাদনে মূল ভূমিকা পালন করে –
a) রাসায়নিক শক্তি b) তড়িৎশক্তি c) ভরের আপাত বিনাশ d) ভরবেগ

উত্তর-নিউক্লিয় বিভাজন বা সংযোজন বিক্রিয়ায় তাপ শক্তি উৎপাদনে মূল ভূমিকা পালন করে – c) ভরের আপাত বিনাশ।

8। নিউক্লিয়ার রিঅ্যাকটরে –
a) শৃঙ্খল বিক্রিয়া ঘটে b) শৃঙ্খল বিক্রিয়া ঘটে না c) শক্তি শোষিত হয় d) কোনোটিই নয়

উত্তর- নিউক্লিয়ার রিঅ্যাকটরে – b) শৃঙ্খল বিক্রিয়া ঘটে।

9। 1986 সালের 28 এপ্রিল রাত্রি 9টায় ঘটে যাওয়া ভয়াবহ নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্ল্যান্ট দুর্ঘটনাটি রাশিয়ার কোথায় ঘটেছিল?
a) ফুকুশিমা b) চেরনোবিল c) মিনামাটা d) ভোপাল

উত্তর-1986 সালের 28 এপ্রিল রাত্রি 9টায় ঘটে যাওয়া ভয়াবহ নিউক্লিয়ার পাওয়ার প্ল্যান্ট দুর্ঘটনাটি রাশিয়ার b) চেরনোবিল ঘটেছিল।

10। নিউক্লিয়ার রিঅ্যাকটরে নিয়ন্ত্রিত নিউক্লিয় বিক্রিয়ায় উৎপন্ন যে পদার্থটির সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা হয়, সেটি হল-
a) প্রোটন b) ইলেকট্রন c) নিউট্রন d) a-কণা

উত্তর- নিউক্লিয়ার রিঅ্যাকটরে নিয়ন্ত্রিত নিউক্লিয় বিক্রিয়ায় উৎপন্ন যে পদার্থটির সংখ্যা নিয়ন্ত্রণ করা হয়, সেটি হল c) নিউট্রন।

আরো পড়ো → পরিবেশ দূষণ প্রশ্ন – উত্তর

একটি বাক্যে উত্তর দাও। (VSAQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 1]

1। α, β, γ রাশির মধ্যে কার ভেদন ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি?
উত্তর– α, β, γ -রাশির মধ্যে γ এর ভেদন ক্ষমতা সবচেয়ে বেশি ।

2। তেজস্ক্রিয় রশ্মি তেজস্ক্রিয় মৌলের পরমাণুর কোন্‌ অংশ থেকে নির্গত হয়?
উত্তর- তেজস্ক্রিয় রশ্মি তেজস্ক্রিয় মৌলের পরমাণুর নিউক্লিয়াস থেকে নির্গত হয়।

3। ধনাত্মক আধানযুক্ত তেজস্ক্রিয় কণার নাম লেখো।
উত্তর- ধনাত্মক আধানযুক্ত তেজস্ক্রিয় কণার নাম হলো – আলফা।

4। আধানবিহীন তেজস্ক্রিয় রশ্মির নাম লেখো।
উত্তর- গামা রশ্মি হল আধানবিহীন তেজস্ক্রিয় রশ্মির।

5। কোন ধরনের নিউক্লিয় বিক্রিয়া সূর্যের শক্তির উৎস?
উত্তর- নিউক্লিয় সংযোজন বিক্রিয়া সূর্যের শক্তির মূল উৎস।

আরো পড়ো → বিভিন্ন ঘনবস্তু সংক্রান্ত বাস্তব সমস্যা সংক্রান্ত গাণিতিক সমস্যার সমাধান

সংক্ষিপ্ত উত্তরভিত্তিক প্রশ্ন (SAQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান 2/3]

1। তেজস্ক্রিয়তা কাকে বলে?
উত্তর- যখন কোন ভারী মৌলিক পদার্থের নিউক্লিয়াস থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অবিরাম আলফা, বিটা ও গামা রশ্মি বিকিরিত হয় এবং ভারী মৌলের নিউক্লিয়াসটির পারমাণবিক ক্রমাঙ্ক ও ভরসংখ্যার পরিবর্তন হয় তেজস্ক্রিয়তা।

2। স্বাভাবিক তেজস্ক্রিয়তার বৈশিষ্ট্যগুলি কী কী?
উত্তর- স্বাভাবিক তেজস্ক্রিয়তার বৈশিষ্ট্য-
(i) স্বাভাবিক তেজস্ক্রিয়তায় নিউক্লিয়াস থেকে স্বতঃস্ফূর্তভাবে অবিরাম আলফা, বিটা ও গামা রশ্মি বিকিরিত হয়।
(ii) তেজস্ক্রিয়ভাবে পরিবর্তিত মৌলের নিউক্লিয়াসের পারমাণবিক ক্রমাঙ্ক ও ভরসংখ্যার পরিবর্তন হয়।

3। কার্বন ডেটিং কী?
উত্তর- C-14 আইসোটোপের তেজস্ক্রিয় বিঘটনকে ব্যবহার করে কোনো জৈব বস্তুর সঠিক বয়স নির্ধারণকেই কার্বন ডেটিং বলা হয়।

4। তেজস্ক্রিয় মৌল কাকে বলে?
উত্তর- কোনো মৌলের আইসোটোপ যদি অসুস্থিত থাকে, এবং তার থেকে তেজস্ক্রিয় রশ্মি নির্গত হয় এবং নিউক্লিয়াসটির পারমাণবিক সংখ্যা ও ভর সংখ্যা পরিবর্তিত হয় সেই সকল মৌলকে তেজস্ক্রিয় মৌল বলে।

5। তেজস্কিয় বিকিরণের দুটি ক্ষতিকারক প্রভাব উল্লেখ করো।
উত্তর- তেজস্কিয় বিকিরণের দুটি ক্ষতিকারক প্রভাব-
(i)প্যাথোলজিকাল-তেজস্ক্রিয়তার ফলে সরাসরি শরীরের নানা অঙ্গ ক্ষতিগ্রস্থ হয়ে পড়ে।
(ii) জীনগত ক্ষতি- তেজস্ক্রিয়তার কারণে সরাসরি DNA তে ক্ষতিকারক মিউটেশন দেখা যায়। যার ফলস্বরূপ ক্যানসার হতে পারে।

6। নিউক্লিয় সংযোজনের পূর্বে নিউক্লিয় বিভাজন ঘটানো আবশ্যক – কেন?
উত্তর- নিউক্লিয় বিভাজন ঘটাতে প্রচুর তাপের প্রয়োজন হয়। যেহেতু নিউক্লিয় সংযোজনে যথেষ্ঠ পরিমাণ তাপের সৃষ্টি হয়, তাই সেই তাপকে কাজে লাগিয়ে নিউক্লিয় সংযোজন ঘটানো হয়। এই কারণেই নিউক্লিয় সংযোজনের পূর্বে নিউক্লিয় বিভাজন ঘটানো আবশ্যক। পৃথিবীতে নিউক্লিও বিভাজন ব্যতীত সংযোজনে প্রয়োজনীয় এই পরিমাণ তাপ আর কোনোভাবে উৎপন্ন করা সম্ভব নয়।

7। নিউক্লিয় সংযোজন বিক্রিয়া কী? উদাহরণ দাও। অথবা, নিউক্লিয় সংযোজন বিক্রিয়াটি সমীকরণসহ ব্যাখ্যা করো।
উত্তর- কোনো ক্ষেত্রে অতি উচ্চ তাপমাত্রায় দুটি স্বল্প ভরযুক্ত পরমাণুর নিউক্লিয়াস একত্রে যুক্ত হয়ে একটি বৃহত্তর নিউক্লিয়াস গঠন করে এবং প্রচুর পরিমাণ শক্তি নির্গত হয়। এই বিক্রিয়াকে নিউক্লিয় সংযোজন বলে।
উদাহরণ- চারটি হাইড্রোজেন কেন্দ্রক যুক্ত হয়ে একটি হিলিয়াম কেন্দ্রক ও দুটি পজিট্রন গঠিত হয় এবং প্রচুর পরিমাণ শক্তি নির্গত হয়। সমীকরণের সাহায্যে প্রকাশ করলে হয়—
\(4_1H^1\)→\(_2He^4\) + \(2_{+1}e^0\)+শক্তি

8। নিউক্লিয় বিভাজনকে শৃঙ্খল বিক্রিয়া বলা হয় কেন?
উত্তর- নিউক্লিয় বিভাজনকে শৃঙ্খল বিক্রিয়াটি-
\(_{92}\textrm{U}^{235}\) +\(_{0}\textrm{n}^{1}\) ➜ \(_{92}\textrm{U}^{236}\) ➜ \(_{56}\textrm{Ba}^{141}\) +\(_{36}\textrm{Kr}^{92}\) + \(3_{0}\textrm{n}^{1}\)+ শক্তি
উপরিক্ত বিক্রিয়ায় আমরা দেখতে পাই, বিক্রিয়া সংগঠিত করতে নিউট্রন প্রয়োজন হয় এবং বিক্রিয়াজাত হিসাবে তিনটি নিউট্রন পাওয়া যায়। এই বিক্রিয়াজাত তিনটি নিউট্রন পুণরায় গিয়ে তিনটি ইউরেনিয়ামকে আঘাত করে। এই ভাবে বিক্রিয়ার প্রতিটি ধাপে উৎপন্ন নিউট্রন ইউরেনিয়ামকে আঘাত করে। এই ভাবেই বিক্রিয়ার শৃঙ্খল বজায় থাকে এবং বিক্রিয়া ক্রমশ এগিয়ে যায়। এই কারণে নিউক্লিয় বিভাজনকে শৃঙ্খল বিক্রিয়া বলা হয়।

আরো পড়ো → তাপের ঘটনাসমূহ – প্রশ্ন উত্তর

WBPorashona.com-এর পোস্ট আপডেট নিয়মিত পাবার জন্য –


আমাদের কাজ থেকে উপকৃত হলে এই লেখাটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

WBP-YT-Banner