বোঝাপড়া – প্রশ্ন উত্তর | Bojhapora – Question Answer

নিয়মিত প্রশ্ন উত্তরের আপডেট পাও নিজের মোবাইলে 👇

wb porashona.com whatsapp channel
bojhapora-question-answer
শ্রেণি – অষ্টম | বিভাগ – বাংলা | অধ্যায় – বোঝাপড়া | Bojhapora

এই পর্বে রইল অষ্টম শ্রেণির বাংলা গল্প – বোঝাপড়া – থেকে সম্পূর্ণ প্রশ্ন উত্তর আলোচনা।

সঠিক উত্তর নির্বাচন কর (MCQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান ১]

1। বিশ্বভুবন কেমন?
(ক) সুন্দর (খ) অসুন্দর (গ) মস্ত-ডাগর (ঘ) নাতিদীর্ঘ

উত্তর- বিশ্বভুবন (গ) মস্ত-ডাগর।

2। সত্যকে মেনে নিতে হবে –
(ক) তর্কসাপেক্ষে (খ) শর্তসাপেক্ষে (গ) সহজে (ঘ) কঠিনভাবে

উত্তর- সত্যকে মেনে নিতে হবে (গ) সহজে।

3। পাহাড় ছিল কোথায় মাথা তুলে?
(ক) জলের উপর মাথা তুলে (খ) জলের তলায় মাথা তুলে (গ) জলে ধারে ডাঙায় মাথা তুলে (ঘ) নদীর পাশে

উত্তর- পাহাড় ছিল জলের তলায় মাথা তুলে।

4। ‘তোমারি কি এমন ভাগ্য/ বাঁচিয়ে যাবে সকল ______!’
(ক) ধকল (খ) জখম (গ) ক্ষত (ঘ) বদল

উত্তর – ‘তোমারি কি এমন ভাগ্য/ বাঁচিয়ে যাবে সকল (খ) জখম!’

5। ‘বোঝাপড়া’ কবিতাটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত যে কাব্যগ্রন্থে রয়েছে –
(ক) পুনশ্চ (খ) খেয়া (গ) শেষলেখা (ঘ) ক্ষণিকা

উত্তর – ‘বোঝাপড়া’ কবিতাটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত (ঘ) ক্ষণিকা কাব্যগ্রন্থে রয়েছে।

6। ‘দিপালিকা’ -এর কোন্‌ প্রতিশব্দ ‘বোঝাপড়া’ কবিতায় আছে-
(ক) দ্বীপ (খ) প্রদীপ (গ) কুডুল (ঘ) অস্তাচলে

উত্তর- ‘দিপালিকা’ -এর কোন্‌ প্রতিশব্দ ‘বোঝাপড়া’ কবিতায় আছে- (খ) প্রদীপ।

7। আঁধার ঘরে কি জ্বালাতে বলছেন কবি?
(ক) মশাল (খ) বিজলী বাতি (গ) প্রদীপ জ্বালাও (ঘ) কোনটাই নয়

উত্তর- আঁধার ঘরে (গ) প্রদীপ জ্বালাতে বলছেন কবি।

8। আকাশ তবু কেমন থাকে?
(ক) সুবিমল (খ) নির্মল (গ) নাতিদীর্ঘ (ঘ) সুনীল

উত্তর- আকাশ তবু (ঘ) সুনীল থাকে।

9। কোন্‌ গ্রন্থের জন্য রবীন্দ্রনাথের নোবেল পান?
(ক) The Song (খ) Gitanjali (গ) The Song offers (ঘ) Song Offerings

উত্তর- (ঘ) Song Offerings গ্রন্থের জন্য রবীন্দ্রনাথ নোবেল পান।

10। শঙ্কা যেখানে নেই সেখানে কী হতে পারে?
(ক) ভরাডুবি (খ) জাহাজডুবি (গ) নৌকাডুবি (ঘ) মৃত্যু

উত্তর- শঙ্কা যেখানে নেই সেখানে (খ) জাহাজডুবি হতে পারে।

আরো পড়ো → আঞ্চলিক শক্তির উত্থান – প্রশ্ন উত্তর

অতি সংক্ষিপ্ত প্রশ্ন (VSAQ)

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান ১]

1। বিধির সঙ্গে বিবাদ করে অনেক সময় মানুষ কী করে?
উত্তর- বিধির সঙ্গে বিবাদ করে অনেক সময় মানুষ নিজের পায়েই কুড়ুল মারে।

2। ‘মনরে আজ কহ যে’ – ‘মন’-রে কবি কী বলতে বলেছেন?
উত্তর- কবি মনকে বলতে বলেছেন যে, ভালো-মন্দ যাই আসুক না কেন সত্যকে সহজেই গ্রহণ করতে হবে।

3। কোথায় জাহাজডুবি সম্ভাবনা দেখা যায়?
উত্তর- যেখানে কোনো আশঙ্কার সম্ভাবনা থাকে না, সেখানেই জাহাজডুবির সম্ভাবনা দেখা যায়।

4। ‘বোঝাপড়া’ কবিতার মূল বক্তব্য একটি বাক্যে লেখো।
উত্তর- জীবনে ভালো-মন্দ যাই ঘটুক সেটাই সত্য এবং এই সত্যকে সহজেই মেনে নেওয়াটাই মানুষের কর্তব্য।

5। ‘এলে সুখের বন্দরেতে’ – সুখের বন্দরে কীভাবে আসতে হয়?
উত্তর- অনেক ঝঞ্জা অর্থাৎ বাধা- বিপত্তি অতিক্রম করে সুখের বন্দরে আসতে হয়।

আরো পড়ো → অস্থিত পৃথিবী – প্রশ্ন উত্তর

বিশ্লেষণধর্মী প্রশ্ন উত্তর

[প্রতিটি প্রশ্নের প্রশ্নমান ২]

1। ‘নিজের পায়েই কুড়ুল মারো’, – নিজের পায়ে কুড়ুল মারার অর্থ কী?
উত্তর- আলোচ্য পঙক্তিটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত বোঝাপড়া থেকে নেওয়া হয়েছে। জীবন সুখ-দুখের সমাহার, চক্রাকারে তা চলতে থাকে। দুঃখের মুহূর্তে পরমেশ্বরের উপর আস্থা হারিয়ে বহু মানুষই নিজের ভবিষ্যৎকে বিষাদে ভরিয়ে তোলেন। নিজের পায়ে কুড়ুল মারলে যেমন নিজেরই ক্ষতি হয় তেমনি এইক্ষেত্রেও মানুষ নিজের জীবনের উপর আস্থা হারিয়ে সত্য গ্রহণ করতে না চেয়ে আখেরে নিজেরই ক্ষতি করে।

2। ‘সেইটে সবার চেয়ে শ্রেয়’ – উক্তিটির মাধ্যমে কবি কী বলতে চেয়েছেন?
উত্তর- আলোচ্য পঙক্তিটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘বোঝাপড়া’ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে। জীবন পথে চলতে গেলে বহু মানুষের সাথে আমাদের মতানৈক্য হয়। কিন্তু, বিবাদ করে চলা কখনই উচিত নয়। বিবাদ, বিরোধ মানুষকে একা করে দেয়। তাই সমাজে শান্তিতে থাকতে হলে সকলের সাথেই আমাদের একটি ভারসাম্য অবস্থা মেনে চলতে হয়। বিবাদ করে দুঃখে ডুবে যাওয়ার থেকে তাই কবি শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান করে ভেসে থাকাকেই শ্রেয় বলে মনে করছেন।

3। ‘বোঝাপড়া’ কবিতায় কবি প্রকৃতপক্ষে কোন বোঝাপড়ার কথা বলতে চেয়েছেন?
উত্তর- আলোচ্য কবিতা ‘বোঝাপড়া’ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর। এই কবিতা আসলে আমাদের আবেগি মানব হৃদয়কে বাস্তবের আয়নার সামনেই যেন দাঁড় করিয়ে দেয়। জীবনের বাস্তব অনেক বেশি সহজ। দুঃখ-সুখ আসলে এই জীবনের দুটো দিক, তাই উভয় ক্ষেত্রে মন যেন সেই সত্যকে গ্রহণ করতে পিছ পা না হয়, তারই ‘বোঝাপড়া’র কথা এই কবিতায় কবি ব্যক্ত করেছেন।

4। ‘সুখ পাওয়া যায় অনেকখানি’ – কীভাবে এই সুখ পাওয়া সম্ভব?
উত্তর- আলোচ্য পঙক্তিটি রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘বোঝাপড়া’ কবিতা থেকে নেওয়া হয়েছে। এই কবিতাটি একটি জীবনমুখী কবিতা। মানুষ বিশ্বের সবথেকে উন্নত প্রাণী। জ্ঞান, বুদ্ধি, শিক্ষা, চেতনা, মানবিকতার বিকাশ একমাত্র এই মানুষের মধ্যেই লক্ষ্যনিয়। মানুষ তার অপরিসীম চাহিদা মেটাতে গিয়ে হিংসা, হানাহানি, বিবাদ, ঝগড়ায় জড়িয়ে পড়ে। কিন্তু, বাস্তবে মানুষ তার বন্ধুত্বের হাত যদি বাড়ায় তবে এত হিংসা হানাহানি হয়না। সেই বন্ধুত্বের সম্পর্কে সুখ পাওয়া যায়। যা কখনই বিবাদ-বিরোধে পাওয়া যায়না।

আরো পড়ো → বনভোজনের ব্যাপার – প্রশ্ন উত্তর

WBPorashona.com-এর পোস্ট আপডেট নিয়মিত পাবার জন্য –


আমাদের কাজ থেকে উপকৃত হলে এই লেখাটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করার অনুরোধ রইল।

পড়া মনে রাখার সেরা উপায় 👇

WBP-to-the-point-banner-v1